Wireless Earphone

Qcy t9s bluetooth 5.0 Tws Earbuds

যদি লম্বা রিভিউ পড়তে বিরক্ত লাগে তাহলে শুধু প্রথম লাইন টাই পড়ুন।?
যদি বেজ লাভার হয়ে থাকেন আর বাজেট ২০০০ টাকা হয় তাহলে রিভিউ পরে সময় নষ্ট না করে অর্ডার টা সেরে ফেলেন। আর যদি ব্যালেন্সড সাউন্ড পছন্দ করেন তাহলে গো ফর Ovevo Q65 Pro.
কি কি থাকছে বক্সে:
১. Qcy t9s এর চার্জিং কেস
২. ৩ জোড়া ইয়ারটিপস
৩. ৩ জোড়া ইয়ারহুক
৪. একটি শর্ট মাইক্রো ক্যাবল
৫ মোস্ট ইম্পোর্টেন্ট ১ জোড়া ইয়ারবাডস?

বিল্ট কোয়ালিটি: প্রথমেই আসি বক্স নিয়ে। Qcy t2c থেকে বক্সে বেশ চেন্জ আনা হয়েছে সর্বপ্রথম তো বলবো এর plastic material choosing এ। বেশ ভাল কোয়ালিটির প্লাস্টিক ম্যাটেরিয়াল ব্যবহার করা হয়েছে এতে। ম্যাট ফিনিশ হওয়ায় একটা প্রিমিয়াম ফিল পাবেন। শেপে এও বেশ চেন্জ এসেছে কিছুটা রাউন্ড স্কয়ার হওয়াতে হাতে রেখে গ্রিপ ভালো পাবেন। এবং পকেটেও অসুবিধা হবে না। ইয়ারবাড গুলো কিছুটা বাল্কি মনে হয় তবে সাজেশন থাকবে ইয়ারহুক গুলো খুলে ব্যবহার করতে। কারন ওগুলো বেশ শক্ত। যদিও এক এক জনের কানের সাইজ এক এক রকম তাই আগে দেখে নিবেন ইয়ারহুক সহ কমফোর্ট ফিল করেন কিনা। খারাপ লেগেছে আগের qcy t2c এর মত এতেও ব্যবহার করা হয়েছে physical button. এবার তো চেন্জ করেন ভাই… uiisii এই বাজেটে টাচ প্যানেল দিচ্ছে??

ব্যাটারি ব্যাকাপ : মিউজিক টাইম : ৩.৫ ঘন্টা, চার্জিং বক্স ব্যাকাপ ২০ ঘন্টা।

মিউজিক কোয়ালিটি: সব থেকে বড় চেন্জ এসেছে এই সেকশন এ। বেজের পরিমান বেশ বাড়ানো হয়েছে।গানের প্রতি নোটে বেজের একটা ইম্পেক্ট লক্ষ্য করবেন। মিড বেজ থেকে সাব বেজের সেপারেশন ভালো ছিলো।তবে অবাক লেগেছে বেজের জন্য ভোকাল টা পিছনে পড়ে যায় নি। তবে ঘাটতি পেয়েছি কিছুটা ট্রেবলে। তবে এক দিকে ভালোই কারন অতিরিক্ত ট্রেবলে অল্প কিছুক্ষণে মাথা ধরে যায়। Sbc & AAC সাপোর্ট হওয়ায় লেটেন্সি QCY T2C থেকে কম পাবেন। সাজেশন থাকবে কানেক্ট করার পর সেটিংস এ গিয়ে AAC চালু করে নিতে।

কিছু খারাপ দিক:
১. কিছুটা মোটা ইয়ারবাডস
২. ইয়ারহুক গুলো মোটেও সুবিধার লাগে নি আমার কাছে
৩. ম্যাট ফিনিশ বক্স হওয়ায় দেখতে সুন্দর লাগলেও যত্ন না নিলে স্ক্র্যাচ পড়তে পাড়ে।
৪. টাইপ সি দেন নাই ক্যান ভাই??

Back to list

Leave a Reply

Your email address will not be published.